বাড়ি দেশ ২০২৪ সালের মধ্যে অনুপ্রবেশকারী মুক্ত হবে ভারত : অমিত শাহ

২০২৪ সালের মধ্যে অনুপ্রবেশকারী মুক্ত হবে ভারত : অমিত শাহ

118
0

ফরিদাবাদ (হরিয়ানা), ১৬ অক্টোবর : ফরিদাবাদের নির্বাচনী জনসভা থেকে মনমোহন সিংকে মৌনী বাবা বলে কটাক্ষ করেছেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। পাশাপাশি এনআরসি নিয়ে কংগ্রেসের অবস্থানের নিন্দা করে তিনি জানিয়েছেন, এনআরসির বিরোধিতা করছে কংগ্রেস। তারা বলছে অনুপ্রবেশকারীরা কোথায় যাবে। কিন্তু ২০২৪ সালে মধ্যে গোটা ভারত থেকে অনুপ্রবেশকারীদের বেছে বেছে দেশ ছাড়া করা হবে। তিনি আরও বলেন, কেন্দ্রে দশ বছর পর্যন্ত কংগ্রেস সরকার ছিল আর   প্রধানমন্ত্রী পদে ছিলেন ড.মনমোহন সিং। সেই সময় জঙ্গিরা দেশে প্রবেশ করে ভারতীয় সেনা জওয়ানদের হত্যা করে তাদের মাথা কেটে নিয়ে চলে যেত। কিন্তু মৌনীবাবুর মুখ থেকে কোনও আওয়াজ পাওয়া যেত না।  মোদী সরকার কেন্দ্রে ক্ষমতায় আসার পর উরি ও পুলওয়ামায় সন্ত্রাসবাদী হামলা হলে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে সেনাবাহিনী পাকিস্তানে ঢুকে জঙ্গিদের নিকেশ করেছিল। শহিদ জওয়ানদের বদলা নরেন্দ্র মোদী নিয়েছিলেন।   
বুধবার ফরিদাবাদের ঐতিহাসিক তিগাঁওয়ের মাটিতে দাঁড়িয়ে অমিত শাহ সদ্য সমাপ্ত লোকসভা নির্বাচনে বিজেপির অভূতপূর্ব সাফল্যের পেছনে হরিয়ানাবাসীর ভূমিকার কথা উল্লেখ করে জানিয়েছেন, লোকসভা নির্বাচনে ভোলে শঙ্করের মতো হরিয়ানার জনগণ নরেন্দ্র মোদীর ঝুলিতে পদ্ম পর পদ্ম দিয়ে তাঁকে আবার প্রধানমন্ত্রী করেছেন। বিজেপি ৩০০টির বেশি আসন পেয়েছিল। ক্ষমতায় আসার পর লোকসভার প্রথম অধিবেশনেই ৩৭০ ধারা বিলুপ্ত করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়। এর আগে তা করে দেখানোর সাহস কোনও প্রধানমন্ত্রী দেখাননি। যা নরেন্দ্র মোদী দেখিয়েছেন।   অমিত শাহ জানিয়েছেন, সন্ত্রাসবাদ হচ্ছে কংগ্রেসের উপহার। নয়ের দশক থেকে এখনও পর্যন্ত ৪০ হাজারেরও বেশি মানুষ সন্ত্রাসবাদী হানায় প্রাণ হারিয়েছে।  এখন দেশে বিজেপির সরকার রয়েছে। দেশ থেকে সন্ত্রাসবাদকে নিশ্চিহ্ন করে দেওয়া হবে। প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী ভূপেন্দ্র সিং হুড্ডাকে কটাক্ষ করে  স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ বলেন, গান্ধীদের জামাইয়ের হয়ে হরিয়ানাবাসীর জমি ছিনিয়ে নেওয়ার কাজ করে গিয়েছেন তৎকালীন মুখ্যমন্ত্রী ভূপেন্দ্র সিং হুড্ডা। গান্ধী পরিবারের দালালি করতেন তিনি। কংগ্রেসের আমলে হরিয়ানার উন্নয়নের জন্য বরাদ্দ করা হয়েছিল ২২ হাজার কোটি টাকা। ১৪তম অর্থ কমিশনে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী হরিয়ানার জন্য বরাদ্দ করেন এক লাখ ১৭ হাজার ২৮ কোটি টাকা ।  দুর্নীতির প্রসঙ্গে কংগ্রেসকে কটাক্ষ করে অমিত শাহ জানিয়েছেন, যখনই কংগ্রেস সরকার এসেছে, দুর্নীতি বেড়েছে, জাতিবাদ ও গুন্ডামি বেড়েছে।  বিজেপি সরকার আসার পরে পুরো হরিয়ানার উন্নয়ন হয়েছে।
রাজ্যবাসীকে বিজেপির পক্ষে ভোট দেওয়ার আহবান করে অমিত শাহ জানিয়েছেন, উন্নয়নের ধারা বজায় রাখার জন্য পুনরায় বিজেপিকে ভোট দিয়ে জয়যুক্ত করুন। এদিনের জনসভায় উপস্থিত ছিলেন বিজেপি অনিল জৈন,  বিপুল গোয়াল, রাজেশ নগর, পন্ডিত টেকচাঁদ শর্মা, কিশান ঠাকুর, রাজকুমার ভোহরা, উজির সিংহ দাগর, নীরা তোমর।

Loading...