বাড়ি কলকাতা মিস শেফালীর মৃত্যুতে ট্যুইটে শোক মুখ্যমন্ত্রীর

মিস শেফালীর মৃত্যুতে ট্যুইটে শোক মুখ্যমন্ত্রীর

127
0

কলকাতা, ৬ ফেব্রুয়ারি : মিস শেফালীর মৃত্যুতে তাঁর পরিবারকে ট্যুইট করে শোক জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। মুখ্যমন্ত্রী বলেছেন, মিস শেফালী নামে সুপরিচিত আরতি দাসের মৃত্যুতে তিনি গভীরভাবে শোকস্তব্ধ। বিশ্ববরেণ্য চলচ্চিত্র পরিচালক সত্যজিত রায়ের দুটি সিনেমা ‘প্রতিদ্বন্দ্বী’ ও ‘সীমাবদ্ধ’ তে তাঁকে দেখা গিয়েছিল। তাঁর পরিবারের প্রতি রইল গভীর সমবেদনা। 
এক ডাকে তাঁকে চিনেছিল তামাম কলকাতা। চিনেছিল তাঁর নাচের গুণীভক্তরাও। তাঁর নাচের কদর করতেন স্বয়ং উত্তমকুমার আর সুচিত্রা সেন। কদর করেছিলেন হেলেনও। ছিলেন কলকাতার বহু পুরুষের রাতের ঘুম কেড়ে নেওয়ার মতো ব্যক্তিত্ব সম্পন্ন। তবুও কেউ কোনওদিন আঙুল তুলে তাঁর দিকে একটা কথাও বলতে পারেননি। নাচের মঞ্চ থেকে সরে গিয়েও ধরে রেখেছিলন অসংখ্য মানুষের শ্রদ্ধা। সত্তরের দশকে যাঁর নাচের হিল্লোলে কলকাতা পেয়েছিল কাব্যারে ডান্সয়ের আস্বাদ।
 বুধবার সকাল ৬টা নাগাদ সোদপুরে নিজের বাড়িতেই শেষ নিশ্বাস ত্যাগ করেন চির যৌবনের হার্টথ্রব। দীর্ঘদিন ধরে কিডনির সমস্যায় ভুগছিলেন তিনি। বেশ কিছুদিন ধরেই ভর্তি ছিলেন মেডিকো হাসপাতালে। তাঁর মৃত্যুতে কার্যত যুগাবসান ঘটল কলকাতার এক বর্ণময় সাংস্কৃতিক অধ্যায়ের। সত্তরের দশক ছিল তার নাচের দশক। সেই সময়েই তৈরি হয়েছিল তাঁর নাচের বহু গুণমুগ্ধ দর্শক। এদিন তাঁর মৃত্যু তাই শুধু কলকাতার সাংস্কৃতিক জগতে নক্ষত্রপতন নয়, কার্যত কলকাতার মুকুট থেকে পালক খসে পড়ার সামিল। কারণ তাঁর ভক্তদের তালিকায় শুধু মহানায়কেরই নাম ছিল না, ছিল বহু দেশী বিদেশী তারকা ও সাধারন মানুষের নামও। তাঁরাই শেফালীকে ডাকতেন, ‘কুইন অফ ইন্ডিয়ান ক্যাবারে’।

Loading...