বাড়ি রাজ্য জলপাইগুড়ি মানসের জঙ্গলে বাঘ শিকার, ধৃত দুই ভুটানি

মানসের জঙ্গলে বাঘ শিকার, ধৃত দুই ভুটানি

147
0

জলপাইগুড়ি, ৩১ অক্টোবর :  অসমের মানসের জঙ্গলে বাঘ শিকার । ডুয়ার্সের আলিপুরদুয়ারের হাসিমারা এলাকা থেকে ধৃত দুই ভুটানি নাগরিক । তাদের কাছে মেলে সেই রয়্যাল বেঙ্গলের চামড়া । ধৃতদের জেরা করতে জলপাইগুড়িতে আসে অসম বন বিভাগের বিশেষ দল ।
বাঘ সমীক্ষার রিপোর্ট বলছে, এই মূহূর্তে অসমের মানসের জঙ্গলে বাঘের সংখ্যা ৩০ । তার মধ্যে  ২৫টি পূর্ণবয়স্ক বাঘ ও পাঁচটি শাবক রয়েছে মানসে ৷ গত জানুয়ারি মাসে জঙ্গলে ঢুকে পূর্ণ বয়স্ক বাঘ শিকার করে চোরাশিকারীরা । চলতি বছরের ১৯ জুন গোপন সূ্ত্রে খবর পেয়ে অসম-বাংলা সীমান্তের শ্রীরামপুর সীমান্তে অভিযান চালায় জলপাইগুড়ির বৈকুণ্ঠপুর বন বিভাগের স্পেশাল টাস্ক ফোর্স । মৃত বাঘের ভিডিও সহ সাত জন বন্যপ্রাণীর দেহাংশ পাচারকারীকে গ্রেফতার করা হয় ৷ ধৃতদের জেরায় উঠে আসে আরও তথ্য । শিকারীদের ধরতে যৌথ অভিযানে নামে অসম বন বিভাগ ও বৈকুণ্ঠপুর বন বিভাগের স্পেশাল টাস্ক ফোর্স । ডুয়ার্সের আলিপুরদুয়ারের হাসিমারা এলাকায় অভিযান চালিয়ে গ্রেফতার করা হয় দুই ভূটানি নাগরিককে । ধৃত নামগাই ওয়াংদে ও ইয়াং বার কাছ থেকে উদ্ধার হয় চোদ্দ ফুট লম্বা রয়্যাল বেঙ্গলের চামড়া । মানসের জঙ্গলে শিকার হওয়া বাঘেরই চামড়া এটি । জেরায় স্বীকার করে ধৃতরা । মানসের জঙ্গলে বাঘ শিকারের ঘটনায় ধৃত দু’জনকে জিজ্ঞাসাবাদ করতে বুধবার জলপাইগুড়িতে আসে অসম বন বিভাগের বিশেষ দল । রাত ভোর তারা জিজ্ঞাসাবাদ করে দুই চড়া শিকারী নামগাই ওয়াংদে ও ইয়াং বারকে । এদিনই একটি গন্ডার মেরে তার খড়গ কেটে নেওয়া হয়েছে জ্লদাপারা জাতীয় উদ্যানে । তাই ধৃতদের জিজ্ঞাসাবাদ করে বন বিভাগের দলটি জানতে চায় এই চোরা শিকারের সঙ্গে আর কারা কারা জড়িত । সেই কারনেই আজ বৃহস্পতিবারও জেরা করা হচ্ছে ধৃতদের ।

Loading...