বাড়ি রাজ্য দক্ষিন দিনাজপুর ফের এক করোনা আক্রান্তের হদিশ মিলল দক্ষিণ দিনাজপুরে

ফের এক করোনা আক্রান্তের হদিশ মিলল দক্ষিণ দিনাজপুরে

99
0

ফের এক করোনা আক্রান্তের হদিশ মিলল দক্ষিণ দিনাজপুরে। আক্রান্ত ওই যুবকের বাড়ি জেলার কুশমণ্ডি ব্লকে। ফলে কুশমণ্ডি তথা দক্ষিণ দিনাজপুর জেলায় এখন আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ৪।
বুধবার রাতে মালদা মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালের তরফে পাঠানো রিপোর্টে দক্ষিণ দিনাজপুর জেলায় নতুন করে করোনা আক্রান্তের হদিশ মিলেছে। যদিও এবিষয়ে এখনই কোনরকম মন্তব্য করতে চাননি সরকারি প্রশাসনিক ও স্বাস্থ্য আধিকারিকরা। তবে বৃহস্পতিবার বিকেলে সরকারিভাবে প্রেস বিজ্ঞপ্তি জারি করা হবে বলে জানা গিয়েছে। সেই বিজ্ঞপ্তিতে জেলার সামগ্রিক বিষয়ে তথ্য থাকবে।
জানা গিয়েছে, কর্মসূত্রে ভিন রাজ্য তথা হরিয়ানাতে শ্রমিকের কাজ করতেন করোনা আক্রান্ত ওই যুবক। সম্প্রতি তিনি হরিয়ানা থেকে বাড়ি কুশমণ্ডিতে ফিরেছেন। ওই যুবকের সোয়াব টেস্টের রিপোর্ট পজেটিভ এসেছে। আক্রান্ত যুবককে চিকিৎসার জন্য কোভিড হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

প্রসঙ্গত, গত শনিবার দক্ষিণ দিনাজপুর জেলার কুশমণ্ডি ব্লকে তিন পরিযায়ী শ্রমিকের শরীরে প্রথম করোনার হদিশ মেলে। এরপর ওই তিনজনকে চিকিৎসার জন্য রায়গঞ্জের বেসরকারি কোভিড হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়।

 এদিকে ওই তিনজনের সংস্পর্শে আসার প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষভাবে আসা তিনজন শিশু সহ ৪০ জনকে হোম কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়। এবং তাদের সোয়াব টেস্টের জন্য লালারস সংগ্রহ করা হয়। এদিকে তিন শিশুর বালুরঘাট সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে ট্রু নাটস মেশিনের মাধ্যমে এই পরীক্ষা করা হয়েছিল। তাদের সকলের রিপোর্ট নেগেটিভ আসে।
তবে শিশুদের রিপোর্ট নেগেটিভ এলেও, বাকি ৩৭ জনের লালারস পাঠালেও তাদের রিপোর্ট এখনও এসে পৌঁছায়নি জেলা স্বাস্থ্য দফতরের হাতে। তাই বাকিদের রিপোর্ট কবে আসবে, এখন তা নিয়ে ধন্দ্বে জেলা স্বাস্থ্য দফতর। কারণ ইতিমধ্যেই মালদা ও শিলিগুড়ি মেডিকেল কলেজ মিলিয়ে প্রায় ৬০০-র মত রিপোর্ট পেন্ডিং রয়েছে বলে স্বাস্থ্য দফতর সূত্রে খবর।
এদিকে বুধবারই কুশমণ্ডি গ্রামীণ হাসপাতাল সহ প্রথম তিনজন আক্রান্তদের এলাকা স্যানিটাইজ করা হয়।
আগের তিনজনের করোনা আক্রান্তের সত্যতা স্বীকার করলেও আজকের ঘটনার কোন সত্যতা স্বীকার করেনি জেলা প্রশাসন থেকে স্বাস্থ্য দফতর। বৃহস্পতিবার বিকেলে বের হওয়া প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে পুরো তথ্য থাকতে পারেই বলে অনুমান।

Loading...