বাড়ি রাজ্য পুরশুড়ায় তৃণমূল নেতার বাড়িতে বোমা বাজি খড়ের গাদায় আগুন

পুরশুড়ায় তৃণমূল নেতার বাড়িতে বোমা বাজি খড়ের গাদায় আগুন

359
0
   গোপাল রায়,আরামবাগ,বুধবার রাতে পঞ্চায়েত সমিতির কর্মাধ্যক্ষ নির্বাচনকে ঘিরে তৃণমূলের গোষ্ঠী সংঘর্ষে উত্তেজনা ছড়াল হুগলির পুরশুড়ায়। বোমাবাজির  ও একটি খড়ের গাদায় আগুন লাগানোর ঘটনাও ঘটে বলে এলাকা সূত্রে জানা যায়। খবর পেয়ে রাতেই ছুটে যায় পুরশুড়া থানার পুলিশ । বৃহস্পতিবার পুরশুড়া পঞ্চায়েত সমিতিতে কর্মাধ্যক্ষ নির্বাচন হয়। এর আগেরদিন রাতে এলাকায় চলে বোমাবাজি।  এলাকার একটি খড়ের গাদায় আগুন লাগানোর অভিযোগও উঠেছে স্থানীয় যুব তৃণমূল কর্মীদের বিরুদ্ধে। বৃহস্পতিবার যাতে পঞ্চায়েত সমিতিতে নির্বাচিত মূল তৃণমূলের কোনও সদস্য  বিডিও অফিসে না যেতে পারে, তার জন্যই আগের রাতে এই হামলা চালানো হয় বলে দাবি করেছেন তৃণমূল কংগ্রেসের স্থানীয় কর্মী-সমর্থকরা।
 অভিযোগ, পুরশুড়ার ঘোলদিঘরুইয়ের ন্যাওটা এলাকায় তৃণমূল নেতা তথা পঞ্চায়েত সমিতির বর্তমান সদস্য শেখ আবু হুড়াইয়ের বাড়ি। তাঁর বাড়ির সামনেই যুব তৃণমূলের সদস্যরা বোমাবাজি করে। পাশাপাশি একটি খড়ের গাদায় আগুন লাগানো হয়। স্থানীয় যুব তৃণমূল নেতা এবং ব্লক সভাপতি খোকন মল্লিকের অনুগামীরাই এই কাজ করেছে।
পঞ্চায়েত সমিতির সদস্য তথা স্থানীয় তৃণমূল নেতা শেখ আবু হুড়াই বলেন, ” বৃহস্পতিবার পঞ্চায়েত সমিতির কর্মাধ্যক্ষ গঠন। আমি একজন পঞ্চায়েত সমিতির জয়ী সদস্য। আমি এবং আমাদের লোকজন যাতে বিডিও অফিস যেতে না পারে তার জন্য ব্লক সভাপতি খোকন মল্লিকের লোকজন চক্রান্ত করে আমার বাড়ির সামনে বোমাবাজি করে।
অন্যদিকে, সমস্ত অভিযোগ অস্বীকার করে যুব তৃণমূল নেতা খোকন মল্লিক বলেন, “সব বাজে কথা। কর্মাধ্যক্ষ গঠনের প্রক্রিয়াকে বানচাল করার জন্য চক্রান্ত করা হচ্ছে। এরকম কিছুই হয়নি।” এলাকায় তৃণমূলের দুই গোষ্ঠীর বিবাদে আতঙ্কিত সাধারণ মানুষ। বুধবার কর্মদক্ষ নির্বাচনের যুব তৃণমূল ও মাদার সংগঠনের মধ্যে যুব তৃনমূলের দখলে পঞ্চায়েত সমিতির কর্মাধ্যক্ষের ক্ষমতা চলে যায় বলে এলাকা সূত্রে খবর।
Loading...