বাড়ি কলকাতা দীপাবলির পর রাজ্যজুড়ে বামপন্থীদল গুলোর সঙ্গে কংগ্রেস যৌথ আন্দোলন নামছে

দীপাবলির পর রাজ্যজুড়ে বামপন্থীদল গুলোর সঙ্গে কংগ্রেস যৌথ আন্দোলন নামছে

112
0

কলকাতা, ১৭ অক্টোবর : পশ্চিমবঙ্গে হারিয়ে যাওয়া জমি পুনরুদ্ধার করতে এবার কংগ্রেসের সঙ্গে যৌথ আন্দোলনে নামছে বামফ্রন্ট | দীপাবলীর পর রাজ্যজুড়ে শুরু হবে এই আন্দোলন প্রক্রিয়া | বৃহস্পতিবার এমনটাই জানা যায় দুই দলের সূত্র মারফত | এই আন্দোলনে মূলত রাজ্যের হিংসার পরিস্থিতির বিরুদ্ধে সোচ্চার হবে তাঁরা| এই আন্দোলনে অংশ গ্রহণ করবেন, বামফ্রন্টের চেয়ারম্যান বিমান বোস, সিপিআই(এম) বিধানসভা দলের নেতা সুজন চক্রবর্তী, সিপিএমের রাজ্য সাধারণ সম্পাদক সূর্যকান্ত মিশ্র | কংগ্রেসের তরফ থেকে থাকবেন প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি সোমেন মিত্র, রাজ্যসভার সাংসদ প্রদীপ ভট্টাচার্য, প্রাক্তন রাষ্ট্রপতি প্রণব মুখোপাধ্যায়ের ছেলে অভিজিৎ মুখোপাধ্যায় । জানা গিয়েছে, রাজ্য সরকার ও কেন্দ্রীয় সরকারের বিভিন্ন দুর্নীতি ও বেকারত্বের ইস্যুকে তুলে ধরে আন্দোলনে সোচ্চার হবেন তাঁরা | উভয় দলের মতে রাজ্যে হিংসা পরিস্থিতিকে রুখতে, এবার সময় হয়ে গেছে যৌথভাবে বিজেপি এবং তৃণমূনের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ানোর | এবিষয়ে প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি সোমেন মিত্র বলেন, “আমরা বর্তমানে ন্যূনতম সাধারণ কর্মসূচীর প্রস্তুতি  নিয়েছি | যার ভিত্তিতে যৌথ আন্দোলন বা রাজনৈতিক কর্মসূচি সংগঠিত হবে । দীপাবলির পরেই আমরা রাজ্য জুড়ে আমাদের প্রথম যৌথ আন্দোলন শুরু করব । রাজ্যে বিজেপির সাম্প্রদায়িক শক্তি থামাতে সিপিএম ও কংগ্রেস একত্রিত হওয়া প্রয়োজন ।” তাঁর কথায়, “কেবলমাত্র সিপিএম এবং কংগ্রেসই আছে যারা জনগণের স্বার্থে, রাজ্যে সাম্প্রদায়িক উন্মত্ততা বন্ধ করতে পারে ।”এবিষয়ে সিপিএমের বরিষ্ঠ নেতা সুজন চক্রবর্তী বলেন, “তৃণমূল-কংগ্রেসই রাজ্যে বিজেপির বাড়বাড়ন্ত-এ সহায়তা করেছিল । তৃণমূল এবং বিজেপির মধ্যে লড়াই নকল লড়াই | যার লক্ষ্য মানুষকে বোকা বানানো ।” তাঁর কথায়, “এটি এমন একটি সময়, যখন ধর্মনিরপেক্ষ ও গণতান্ত্রিক শক্তিকে একত্রিত হতে হবে ।”

Loading...