বাড়ি রাজ্য দিলীপ অনুব্রতর গোলাগুলি

দিলীপ অনুব্রতর গোলাগুলি

134
0

রানাঘাটের বদলা নানুরে।  দিলীপের গুলির হুমকির পাল্টা গুলির হুমকি অনুব্রতর। আর এই মন্তব্য নিয়ে বিপাকে বিজেপি। ইতিমধ্যেই সাংসদ বাবুল সুপ্রিয় রাজ্য সভাপতির মন্তব্যের বিরোধিতা করেছেন । এবার অন্য দলের আক্রমণের মুখেও পড়লেন দিলীপ ৷ তাঁকে নিশানা করলেন বীরভূম জেলা তৃণমূল কংগ্রেস সভাপতি অনুব্রত মণ্ডল । নানুরে তিনি বলেন, “আগে দিলীপ ঘোষকে গুলি করে মারা উচিত কেন্দ্র সরকারের ।”নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন নিয়ে উত্তপ্ত রাজ্য । ধর্মতলায় টিএমসিপির। পথে নেমেছে বাম-কংগ্রেস কর্মী সমর্থকরাও । এর মাঝে গতকাল রানাঘাটে CAA-র সমর্থনে এক প্রচার অনুষ্ঠানে গেছিলেন দিলীপ ঘোষ । সেখানে তিনি বলেন, অসম, উত্তরপ্রদেশে আমাদের সরকার এই শয়তানদের কুকুরের মতো গুলি করে মেরেছে৷ তুলে নিয়ে গিয়ে কেসও দিয়েছে৷ পশ্চিমবঙ্গেও একই নিয়ম প্রযোজ্য হবে। রাজ্য সভাপতির এই মন্তব্যে বিপাকে পড়ে দল । বাবুল সুপ্রিয় টুইটবার্তায় জানান, দিলীপ ঘোষের এই মতামতকে তাঁর দল সমর্থন করে না৷ বাবুলের এই বক্তব্যের বিরোধিতা করেন দিলীপ ৷ জানিয়ে দেন, “আমি দলের স্ট্যান্ড মেনেই কথা বলেছি ৷” বিজেপির রাজ্য সভাপতির এই মন্তব্য নিয়ে প্রশ্ন করা হয় অনুব্রত মণ্ডলকে ৷ নানুরে NRC, CAA-র বিরুদ্ধে প্রতিবাদ সভায় যোগ দিতে গিয়েছিলেন তিনি ৷ প্রশ্নের উত্তরে অনুব্রত বলেন, “কেন্দ্র সরকারের উচিত দিলীপ ঘোষকে গুলি করে মারা । যদি প্রথম কেউ সম্পত্তি নষ্ট করে থাকে, তাহলে সে হচ্ছে দিলীপ ঘোষ।সভায় উপস্থিত ছিলেন রাজ্যের মৎস্য মন্ত্রী চন্দ্রনাথ সিংহ, জেলা সভাধিপতি বিকাশ রায়চৌধুরি, সহ সভাপতি অভিজিৎ সিংহ প্রমুখ। সম্প্রতি গ্রামাঞ্চলে বিদ্যুৎ চুরি করে সাবমার্সিবল চালানোর অভিযোগে তৎপর হয়েছে বিদ্যুৎ দপ্তর ৷ চাষিদের অভিযোগ, মিথ্যা মামলায় চাষিদের জড়াচ্ছে বিদ্যুৎ দপ্তর । এই প্রসঙ্গে অনুব্রত মণ্ডল বলেন, “যাদের বিদ্যুৎ নেই, সাবমার্সিবল নেই এই রকম 8 জনকে কেস দিয়েছে। বিল থাকলে টাকা দিতে হবে। কিন্তু মিথ্যা মামলা দেওয়া যায় না।”

Loading...