বাড়ি খেলা একাধিক অ্যাকাডেমী, আইএসএলের ধাঁচে টুর্নামেন্ট করবে আইএফএ

একাধিক অ্যাকাডেমী, আইএসএলের ধাঁচে টুর্নামেন্ট করবে আইএফএ

38
0

কলকাতা, ৩০ জুন :  আইএফএ–র স্ট্রাইকার্স অ্যাকাডেমি, গোলকিপার্স অ্যাকাডেমি প্রভৃতি গড়ার পরিকল্পনা করছে। এই সঙ্গে জেলা ফুটবলে গ্ল্যামার আনতে আইএসএলের ধাঁচে টুর্নামেন্ট করার প্রস্তাবের কথা আইএফএ চিন্তা করছে। তাঁদের ধারণা, ফ্র্যাঞ্চাইজি টুর্নামেন্ট করলে ফুটবলপ্রেমীদের আগ্রহ বাড়বে। 

জেলা ফুটবলের পুরনো গরিমা ফিরিয়ে আনতে বদ্ধপরিকর আইএফএ। প্রাক্তনদের নিয়ে বৈঠকের পর জেলা প্রতি‍নিধিদের নিয়ে বৈঠক হয়েছে। এতে ছিলেন প্রাক্তন ফুটবলাররাও। নানান নতুনরকম প্রস্তাব উঠে এসেছে।
প্রাক্তন ফুটবলার দীপেন্দু বিশ্বাস, বিশ্বজিৎ ভট্টাচার্য, রঞ্জিৎ মুখার্জি, সঞ্জয় মাঝি, প্রশান্ত চক্রবর্তীদের সঙ্গে আইএফএ–সচিবের বিভিন্ন বিষয়ে মতানৈক্য হলেও এর মাধ্যমেই এগিয়ে যাওয়ার পথ খুঁজবেন বলে জানিয়েছেন আইএফএ সচিব। অভিজ্ঞরা অনেকে চাইছেন, শুধুমাত্র স্ট্রাইকারদের নিয়ে স্ট্রাইকার্স অ্যাকাডেমি এবং গোলকিপারদের নিয়ে গোলকিপার্স অ্যাকাডেমি গড়তে। 
দীপেন্দু বলেন, ‘শুধুমাত্র স্ট্রাইকারদের নিয়ে অ্যাকাডেমি গড়া সম্ভব নয়। অ্যাকাডেমিতে ডিফেন্ডার, মিডফিল্ডার, গোলকিপারও রাখতে হবে। অন্য পজিশনের প্লেয়ার না রাখলে স্ট্রাইকারদের প্র্যাকটিস করানো যাবে না। তবে, আমরা স্ট্রাইকারদেরই ফোকাসে রাখব।’ একই মত পোষণ করেছেন অন্যান্য প্রাক্তনরা। 
বিশ্বজিৎ ভট্টাচার্য বলেন, ‘আমাদের সময়ে আইডল স্ট্রাইকাররা ছিল। যত দিন যাচ্ছে বাংলায় স্ট্রাইকারদের সংখ্যা কমে যাচ্ছে।’ রঞ্জিৎ মুখার্জি বলেন, ‘খুব ভাল উদ্যোগ। এগিয়ে যেতে হবে আমাদের। কিন্তু শুধু স্ট্রাইকার অ্যাকাডেমি নয়। অ্যাকাডেমি গড়তে হবে আইএফএ–কে।’ সভায় হাজির ছিলেন শিশির ঘোষের মতো দিকপাল প্রাক্তন ফুটবলার। শিশির বলেন, ‘আমাদের আরও আগে এরকম পরিকল্পনা নেওয়া উচিত ছিল। অনেকটা দেরি হয়ে গিয়েছে। ফরোয়ার্ডে বিদেশিদের রমরমা। ক্লাবগুলোকেও সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিতে হবে। ওদেরও ব্যাপারটা বুঝতে হবে।’ আইএফএ সচিব জয়দীপ মুখার্জি বলেন, ‘স্ট্রাইকার্স অ্যাকাডেমিই হবে। তবে প্রাক্তনরা যে টেকনিক্যাল দিক তুলে ধরেছে, তা মাথায় রাখব। লকডাউন পুরোপুরি উঠলেই গোলকিপার্স অ্যাকাডেমির কাজ শুরু হবে। চুঁচুড়াতে হবে এই অ্যাকাডেমি। তনুময়দা হেড কোচের ভূমিকা পালন করবে।

Loading...