বাড়ি রাজ্য আমতায় করোনা আক্রান্ত দুই পুলিশ সহ এক আধিকারিক, চিন্তা বাড়াচ্ছে ভাইরাস...

আমতায় করোনা আক্রান্ত দুই পুলিশ সহ এক আধিকারিক, চিন্তা বাড়াচ্ছে ভাইরাস সংক্রমণ

61
0

হাওড়া: আমতায় করোনা পরিস্থিতি ভয়াবহ রূপ নিচ্ছে। একের পর এক প্রশাসনের আধিকারিক আক্রান্ত হচ্ছেন। ইতিমধ্যে দুই পুলিশ আধিকারিক কে উলুবেড়িয়া সঞ্জীবন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। পরিস্থিতি খতিয়ে দেখতে বৈঠকে করছেন বিডিও, পুলিশ কর্তারা।  স্থানীয় ও প্রশাসন সূত্রে জানা গেছে, আমতা নাপিতপাড়া এলাকার ৩০ জনের করোনা রিপোর্ট পজিটিভ আসার পর আমতা নাপিতপাড়া ও মেলাই পাড়া কে কনটেন্টমেন্ট জোন করে সম্পূর্ণ লকডাউন করে দেওয়া হয়েছে। এবার করোনা আক্রান্ত হলেন আমতা থানার দু’জন পুলিশ কর্মী। তাঁদের মধ্যে এক জন এএসআই এবং ১ ভিলেজ পুলিশ। আক্রান্তদের উলুবেড়িয়া সঞ্জীবন হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তবে, এর জন্য থানা বন্ধ রাখা হয়নি। সমস্ত কাজ বহাল রাখা হয়েছে পুলিশ সূত্রে জানা গেছে। তবে স্থানীয় একটি সূত্রে জানাচ্ছে, থানার কাজ করা এক মহিলাও আক্রান্ত হয়েছেন। কোয়ারেন্টাইন জোন এলাকায় ডিউটি করা সিভিক ভলান্টিয়ারদের থানায় আসতে নিষেধ করা হয়েছে। আমতা কিষান মান্ডি তে ৫জন ব্যক্তি কোয়ারান্টাইনে রয়েছেন। আমতার বিভিন্ন এলাকা থেকে এসেছেন।  

আমতা থানার ওসি কিঙ্কর মন্ডল বলেন, আমতা থানার দুই পুলিশ আধিকারিকের করোনা রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে। আক্রান্তের মধ্যে একজন এএসআই রয়েছেন। অন্যজন ভিলেজ পুলিশকর্মী। দু’জনকে উলুবেড়িয়া সঞ্জীবন হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

অন্যদিকে আমতা নাপিত পাড়া এলাকার পাশের পাড়ার এক আশা কর্মীর করোনা রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে বলে জানা গেছে। শরীরে উপসর্গ না থাকায় ওই আশা কর্মীকে বাড়িতেই রাখা হয়েছে। এদিন দেখা গেল ওই আশা কর্মীর বাড়ির সামনে ঘিরে দেওয়া হয়েছে। করোনা লড়াইয়ে প্রাণপন লড়ছেন স্বাস্থ্যকর্মীরা। তাঁরাই আক্রান্ত হলে তো বিপদ আরও বাড়বে বলে মত স্থানীয়দের। নাপিতপাড়া এলাকায় উনি দায়িত্ব পালন করেছেন বলে মনে করছে স্থানীয়রা। ওখান থেকে না হলে পরিযায়ী শ্রমিকদের থেকে ওঁনার শরীরে ছড়িয়ে থাকতে পারে। বিষয়টি নজরে রাখা হচ্ছে।  

আমতা ব্লক সমষ্টি উন্নয়ন আধিকারিক লোকনাথ সরকার জানান, এক আশা কর্মীর করোনা পজিটিভ রিপোর্ট এসেছে। শরীরে উপসর্গ না থাকায় ওই আশা কর্মীকে হোম কোয়ারেন্টাইন করা হয়েছে। শরীরে উপসর্গ দেখা দিলে সেক্ষেত্রে উলুবেড়িয়া ইএসআই বা সঞ্জীবন হাসপাতালে ভর্তি করানো হবে।

পাশাপাশি, করোনায় আক্রান্ত আমতা ২ বিডিও অফিসের কর্মী। মঙ্গলবার বিডিও গেটে তালা ঝুলিয়ে দেওয়া হয়। এক সপ্তাহ বন্ধ থাকবে আমতা ২বিডিও অফিস। বিডিও সূত্রে জানা গেছে, অফিসের এক কর্মী করোনা ভাইরাস আক্রান্ত হওয়ায় এক সপ্তাহ বিডিও অফিস বন্ধ থাকবে। সেইমতন পোস্টার মেরে দেওয়া হয়েছে গেটে। একি সঙ্গে বিডিও অফিসের গেটে তালা ঝুলিয়ে দেওয়া হয়েছে। এর ফলে সমস্যায় পড়েছেন আমফান ত্রাণ নিয়ে নতুন করে ফর্ম জমা দিতে আসা ব্যক্তিরা। বিডিও অফিস বন্ধ থাকায় ফিরে যাচ্ছেন বহু দূর দুরান্ত থেকে আসা মানুষজন।

আমতা-২ ব্লক স্বাস্থ্য আধিকারিক সূত্রে জানা গেছে, আমতা-২ পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। মঙ্গলবার সকালে রিপোর্ট পজিটিভ আসে। শরীরে হাল্কা উপসর্গ থাকায় উলুবেড়িয়া সঞ্জীবন হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

Loading...