বাড়ি রাজ্য আমতার চকশালিকায় ভাঙল মণীষীমূর্তি, এবার শিকার নেতাজি সুভাষ চন্দ্র বসু

আমতার চকশালিকায় ভাঙল মণীষীমূর্তি, এবার শিকার নেতাজি সুভাষ চন্দ্র বসু

84
0

হাওড়া: গ্রামীণ হাওড়ার জয়পুর থানার চকশালিকা গ্রামে রাতের অন্ধকারে ভাঙল মনীষীর মূর্তি। লজ্জাজনক ঘটনার সাক্ষী থাকল জয়পুর থানার চকশালিকা গ্রাম। ঘটনায় হতবাক এলাকার সাধারণ মানুষ থেকে শিক্ষিত গুণিজন।
স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, ১৯৭৫ সালে মূর্তিটি স্বাধীনতা সংগ্রামীর হাত দিয়ে উদ্বোধন হয়েছিল। বৃহস্পতিবার সকালে গ্রামবাসীরা দেখতে পান নেতাজি সুভাষ চন্দ্র বসুর মূর্তিটি ভেঙে দেওয়া হয়েছে। ঘোড়ার পা মুড়ে ভেঙে দেওয়া হয়েছে। নেতাজির মুখে ইট জাতীয় কোন বস্তু দিয়ে আঘাত করে ছাড়িয়ে দেওয়া হয়েছে। মূর্তি ভাঙার ঘটনা ঘিরে চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে চকশালিকা সহ আশপাশের গ্রামে। জয়পুর থানায় খবর দেওয়া হলে পুলিশ এসে দেখে গিয়েছে। 
অমরাগড়ি গ্রাম পঞ্চায়েত থেকে এক কিমি দূরত্বে চকশালিকা গ্রাম। তার দুশো মিটারের মধ্যে নেতাজি মোড় বলে এলাকাটি পরিচিত। চারমাথা মোড়ে সুভাষ চন্দ্র বসুর মূর্তিটি ৪৫ বছর আগে বসানো হয়েছিল। মূর্তি ভাঙার পিছনে কারা জড়িত, সে ব্যাপারে খতিয়ে দেখছে জয়পুর থানার পুলিশ এমনটাই পুলিশ সূত্রে জানা গেছে। নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসুর মূর্তি ভাঙার ঘটনা ঘিরে চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে এলাকায়। অজ্ঞাতপরিচয় দুষ্কৃতীরা নেতাজির মূর্তি ভেঙেছে বলে গ্রামবাসীদের অভিযোগ।
গ্রামবাসী ধীরাজ পোড়েল বলেন, মূর্তিটি স্বাধীনতা সংগ্রামী ভক্তিভূষন গুছাইত দিয়েছিলেন। চকশালিকা যুবক সংঘ প্রতিষ্ঠা করেছিলেন। বছরের বিশেষ কিছু দিনে দিনভর অনুষ্ঠান করা হয়। করোনা আবহে সবাই লড়াই করছে। সেই সময় এমন ঘটনায় হতবাক হয়ে যাচ্ছেন এলাকার মানুষজন। রাজনৈতিক শত্রুতা থাকে। কিন্তু একজন মনীষী যিনি দেশের স্বাধীনতার জন্য লড়াই করেছেন তাঁর মূর্তি ভেঙে দেওয়াটা মানা যায় না। 

Loading...