বাড়ি কলকাতা আগামীকাল পথে বেসরকারি বাস না নামলে আইনি পদক্ষেপ নেওয়ার হুঁশিয়ারি মুখ্যমন্ত্রীর

আগামীকাল পথে বেসরকারি বাস না নামলে আইনি পদক্ষেপ নেওয়ার হুঁশিয়ারি মুখ্যমন্ত্রীর

54
0

কলকাতা, ৩০ জুন : আগামীকাল থেকে পথে বেসরকারি বাস না নামালে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়ার হুঁশিয়ারি দিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। অন্যথায় বেসরকারি বাসগুলির সরকার নিয়ে নেবে বলেও জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। নবান্নে দিন মুখ্যমন্ত্রী বেসরকারি বাস সংগঠনগুলির উদ্দেশ্যে বলেন, “ইগোর লড়াই বন্ধ করুন”।  রাজ্যে ৬ হাজার বেসরকারি বাস ও মিনিবাস চালানোর আর্জি জানিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। তিনি বলেছিলেন প্রতি ৬০০০ বাসকে ১৫০০০ টাকা করে আগামী তিন মাস ভর্তুকি দেওয়া হবে। কিন্তু মুখ্যমন্ত্রী আবেদনে সাড়া না দিয়ে মিনিবাস সংগঠন ও বেসরকারি সংগঠন সাফ জানিয়ে দিয়েছিল এই টাকায় তাদের কোনও লাভ হবে না। ফলে ভাড়া না বাড়লে পথে বেসরকারি বাস নামানো তাদের পক্ষে সম্ভব নয়। মোতাবেক চলতি সপ্তাহের শুরুতে সোমবার থেকেই পথে অনেক কম নেমেছে বেসরকারি বাস।এদিকে মঙ্গলবার পরিবহনমন্ত্রীর সাথে মিনিবার সংগঠনের বৈঠকের কথা থাকলেও সেখানে পৌঁছাননি পরিবহনমন্ত্রী তাই এর জেরে আগামীকাল থেকে পথে মিনিবাস নামে না বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছে সংশ্লিষ্ট সংগঠন। এর পরেই ফের একবার আজকে মুখ্যমন্ত্রীর হুঁশিয়ারি দেন আগামীকাল থেকে পথে বেসরকারি বাস না নামলে মহামারী আইন অনুযায়ী বাস সংগঠনের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেবে সরকার। 
এই প্রসঙ্গে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, “সরকারকে মাঝেমাঝে কড়া হতে হয়। আমরা বলেছিলাম ১৫ হাজার টাকা করে দেবো। বাস সংগঠনগুলির সঙ্গে বৈঠক হয়েছে, তারা কথা দিয়ে গিয়েছিলেন বাস নামাবেন। কিন্তু তারপরেও বেশকিছু ইউনিয়নের অন্যরকম বিবৃতি দেখছি।” এরপর এই হুঁশিয়ারি দিয়ে মুখ্যমন্ত্রীর বক্তব্য, “মানুষের অসুবিধা হলে সরকারকে কড়া হতে বাধ্য হতে হবে। বেসরকারি বাস নিয়ে কাল পর্যন্ত দেখবো। আশা করি বিবৃতি নয় যা কথা দিয়েছিলেন তাই রাখবেন। তারপর যদি না মানে তাহলে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেব। প্রয়োজনে ডিজাস্টার আইনের সাহায্য নিয়ে সরকার বাসগুলোকে নিয়ে নেবে, সরকারি ড্রাইভার দিয়ে সেই বাস চালানো হবে।”
ডিজেলের দাম বৃদ্ধির বিষয়টি নিয়ে চিন্তা প্রকাশ করেছেন মুখ্যমন্ত্রী ও। জানিয়েছেন, “পেট্রোপণ্যের দাম বৃদ্ধির সাথে বাসের ভাড়া বৃদ্ধি করছে ঠিক আছে কিন্তু দাম কমলে সে ক্ষেত্রে আর বাস সংগঠন ভাড়া কমায় না সেটা নিয়েই সমস্যা।” মুখ্যমন্ত্রীর কথায়, এটা দরদাম করার সময় নয়। মানুষের পাশে দাঁড়ানোর সময়। কিন্তু সেটা যদি না করেন তাহলে আমরা আইনের ব্যবস্থা নিতে বাধ্য হব। কাল পর্যন্ত দেখবো”। 

Loading...