বাড়ি কলকাতা অতিমারির আবহে এ বছর হচ্ছে না পরিবেশ মেলা

অতিমারির আবহে এ বছর হচ্ছে না পরিবেশ মেলা

8
0

কলকাতা, ২০ নভেম্বর  : অতিমারির আবহে এ বছরের জন্য চন্দননগরের জনপ্রিয় পরিবেশ মেলা স্থগিত রাখা হবে। পরিবর্তে হবে একদিন ব্যাপী পরিবেশ সচেতনতা শিবির। 

২০০৩ শালে ‘সবুজের অভিযান’ নামে এক সংগঠনের নেতৃত্বে চন্দননগরে প্রথম পরিবেশ মেলা অনুষ্ঠিত হয়। প্রতি বছর শীতে পরিবেশের বিভিন্ন ক্ষেত্র নিয়ে প্রচার ও আলোচনার পাশাপাশি কিছু সাংবাদিক বা পরিবেশকর্মীকে অনুষ্ঠানে স্বীকৃতি জানান উদ্যোক্তারা। 
আকাদেমির সভাপতি বিশ্বজিৎ মুখোপাধ্যায় ‘হিন্দুস্থান সমাচার’-কে এ কথা জানিয়ে বলেন, ডিসেম্বর মাসের শেষ সপ্তাহে পরিবেশের উপর একটি কর্মশালা অনুষ্টিত হবে। দূষণ নিয়ন্ত্রণ পষর্দ ২০০৪ শালে এই মেলা আরম্ভ করে। কিন্তু দুই বছর পরে বন্ধ হয়ে যায়। আকাদেমির পক্ষ থেকে কয়েকটি সুনির্দিষ্ট প্রস্তাব রাখা হয়েছে। 
(১) পরিবেশ মেলার পরিবর্তে এ বছর ডিসেম্বর মাসে আয়োজিত হবে একটি একদিন ব্যাপী পরিবেশ সচেতনতা শিবির। জলের অপচয় বন্ধ এবং সরস্বতী নদী সংরক্ষণকে কেন্দ্র করে অনুষ্ঠিত এই কর্মশালায় অংশ গ্রহণ করবেন হুগলি, হাওড়া সহ আরও কয়েকটি জেলার পরিবেশ ও স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার প্রতিনিধি। ডিসেম্বর ২০২০ থেকে পরবর্তী তিন মাস ধরে এ নিয়ে একটি সর্বাত্মক প্রচার অভিযানও চালানো হবে। 
(২) এই কর্মশালা উপলক্ষে প্রকাশিত হবে জল সংরক্ষণ বিষয়ে সবুজ ইস্তাহারের বিশেষ সংখ্যা। সংখ্যাটি উৎসর্গিত হবে প্রয়াত সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের স্মরণে । 
(৩) এই সময়েই পরিবেশ আকাদেমির পক্ষ থেকে প্রকাশিত হবে আরো দুটি গ্রন্থ – (এক) সরস্বতী নদী বাঁচাও আন্দোলনের পরিপূরক হিসেবে বিভিন্ন লেখকের লেখায় সমৃদ্ধ “সরস্বতী নদীর একাল সেকাল” এবং (দুই) পরিবেশ বান্ধব পাটশিল্পকে নিয়ে “সোনালী পাটের কথকতা”।
সংগঠনের সম্পাদক কুনাল সেন এবং সহ সম্পাদক শংকর কুশারী জানান, বৃহস্পতিবার পরিবেশ আকাদেমি, চন্দননগরের আহ্বানে সবুজের অভিযান, বড়বাজারের মাঠে প্রয়াত সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায় স্মরণে সভা হয়। এক মিনিট নীরবতা পালনের মধ্য দিয়ে শুরু হওয়া এই সভায় ‘সত্যজিৎ ও সৌমিত্র” শীর্ষক আলোচনা করেন বিশিষ্ট প্রাবন্ধিক ও সত্যজিৎ গবেষক দেবাশীষ মুখোপাধ্যায়। আলোচনায় উঠে আসে এই দুই মহীরুহের দীর্ঘ পারস্পরিক সম্পর্ক নিয়ে বহু অজানা তথ্য। সঠিকভাবেই আলোচক উল্লেখ করেন সৌমিত্র কেবলমাত্র একজন জনপ্রিয় ও প্রতিভাসম্পন্ন চলচ্চিত্র অভিনেতাই ছিলেন না, ছিলেন একাধারে নাট্যকার ও নাট্যনির্দেশক, ছিলেন কবি ও প্রাবন্ধিক এবং একইসাথে একজন অনন্য বাচিক শিল্পীও। সর্বোপরি ছিলেন একজন সমাজ সচেতন, প্রগতিশীল, বামমনস্ক মানুষ। তাঁকে নিয়ে স্বরচিত কবিতা পড়ে শোনান আকাদেমির সদস্য কবি জগদীশ শর্মা । সভাপতি বিশ্বজিৎ মুখোপাধ্যায়ের ভাষণে উল্লেখিত হয় প্রয়াত সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের পরিবেশ সচেতনতার প্রসঙ্গও।

Loading...