বাড়ি রাজ্য nadia মানসিক অবসাদে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মঘাতী গৃহবধূ

মানসিক অবসাদে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মঘাতী গৃহবধূ

52
0

অবসাদে ফাঁস দিয়ে আত্মঘাতী গৃহবধূ। নিজস্ব সংবাদদাতা , নবদ্বীপ।  মানসিক অবসাদে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা এক গৃহবধূর। ঘটনাটি ঘটে নবদ্বীপ পৌরসভা এলাকায় বড়আখড়া অঞ্চলে। পুলিশ জানায়, গৃহবধূর নাম আরতী চক্রবর্তী (৩৫)। বাড়ি নবদ্বীপ পৌরসভা ৯ নম্বর ওয়ার্ডের বড় আখড়া এলাকায় । এই ঘটনায় এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়ায়। খবর পেয়ে নবদ্বীপ থানার পুলিশ ওই বধুর দেহটি উদ্ধার করে হাসপাতালে পাঠায়। পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানতে পারা যায়, নবদ্বীপ পৌরসভার ৯ নম্বর ওয়ার্ডের বাসিন্দা গৃহবধূ আরতি চক্রবর্তী বেশকিছু দিন যাবৎ মানসিক অবসাদে ভুগছিলেন। দুই সন্তানের জননী আরতি দেবী বৃহস্পতিবার ভোর রাতে বাড়ির বারান্দায় গলায় ফাঁস দেন। আরতি দেবীর স্বামী পেশায় রং মিস্ত্রি প্রশান্ত চক্রবর্তী ঘুম থেকে উঠে দেখেন পাশে স্ত্রী নেই। ঘরের দরজা খুলতেই নজরে পরে স্ত্রী গলায় ফাঁস দেওয়া অবস্থায় ঝুলছে। তার চিৎকারে ছুটে আসে প্রতিবেশীরা। ঘটনার কথা জানিয়ে থানায় খবর পাঠায় তারা। আরতি দেবীর ভাই নবদ্বীপের মহাপ্রভু কলোনীর বাসিন্দা নিতাই দাস জানান, দিদি কিছুদিন যাবৎ মানসিক অবসাদ ভুগছিল। সে আরো জানায়, এর আগেও একবার আত্মঘাতীর চেষ্টা করে দিদি। সেবার জামাইবাবুর নজরে পরে যাওয়ায় সে যাত্রায় বেঁচে যায়। এবার আর তাকে বাঁচান গেলনা। স্থানীয় বাসিন্দা সূত্রে জানতে পারা যায়, আরতি দেবীর মানসিক কারনে আত্মঘাতী হওয়ার পেছনে ঋণ সংক্রান্ত বিষয় জড়িয়ে আছে। জানা যায়, বেশকিছু বেসরকারি ক্ষুদ্র ঋণদান সংস্থার কাছ থেকে নাকি বড় পরিমানে ঋণ করেছিল ওই গৃহবধূ। সেকারণেই মানসিক অবসাদ ভুগছিল ওই গৃহবধূ। যদিও পুলিশ একটি অস্বভাবিক মৃত্যুর মামলা রুজু করে , ময়না তদন্তের জন্য শক্তিনগর জেলা হাসপাতালে পাঠায়।

Loading...