বাড়ি রাজ্য প্রস্তুতি সভার মধ্যে দিয়ে দামামা বাজল সকার কাপের

প্রস্তুতি সভার মধ্যে দিয়ে দামামা বাজল সকার কাপের

43
0

দেবাশীষ কংসবণিক, নবদ্বীপ। নবদ্বীপবাসীর প্রানের উৎসব ঐতিহ্যবাহী রাসের প্রস্তুতি যখন তুঙ্গে, ঠিক সেসময় পৌরসভার সভাগৃহে এক প্রস্তুতি সভার মধ্যে দিয়ে দামামা বেজে গেল ষষ্ঠ বর্ষ নবদ্বীপ মিউনিসিপ্যাল সকার কাপের। প্রস্তুতি সভায় সকার কাপ সূচনার সম্ভাব্য দিন ঠিক হয়েছে ২৪ নভেম্বর রবিবার। যে সময় নবদ্বীপের ঐতিহাসিক রাস উৎসবে বিভিন্ন ক্লাব ও বারোয়ারীগুলি মেতে উঠছে, ঠিক তার দশ দিন আগে বুধবার সন্ধ্যায়, বিধায়ক পুন্ডরীকাক্ষ সাহা এবং পুরপিতা বিমান কৃষ্ণ সাহা এবং শহরের বিভিন্ন ক্লাবের সদস্যদের উপস্থিতে নবদ্বীপ পুরসভার অডিটোরিয়ামে এক বৈঠক করা হয়। সেখানেই ঘোষণা করা হয়, পৌরসভা পরিচালিত ষষ্ঠ বর্ষ সকার কাপ এর সম্ভাব্য দিনক্ষণ। পাশাপাশি ২০১৯ এর সকার কাপের পুরস্কার মূল্য থেকে এবারে পুরস্কার মূল্য বাড়ান হল। এবছর উইনার্স পাবে ৬০ এর জায়গায় ৭৫ হাজার টাকা এবং রানার্স পাবে ৫৫ হাজার টাকা। এছাড়াও ক্লাবগুলোকে প্রতিদিন ম্যাচ পিছু দেওয়া হবে দেড় হাজার টাকা। নবদ্বীপ পৌরসভা পরিচালিত মিউনিসিপ্যাল সকার কাপ শুরু থেকেই উৎসবের চেহারা নিয়েছে। এখানকার ক্রীড়াপ্রেমী মানুষের কাছে অন্যান্য উৎসবের মতোই সকার কাপ একটি উৎসব। সকার কাপে জাতীয় ও আন্তর্জাতিক মানের খেলোয়াড়রা বিভিন্ন ক্লাবের হয়ে অংশ নেয়। এবছরও অংশগ্রহণকারী প্রতিটি দলে বহিরাগতদের পাশাপাশি একজন করে স্থানীয় খেলোয়াড় থাকছে। দিনের পর দিন যেভাবে সকার কাপের জনপ্রিয়তা বাড়ছে তাতে প্রতিবছর কোনও না কোনও ক্লাব অংশ নেওয়ার ইচ্ছে প্রকাশ করছে। নতুন একটি ক্লাব সহ এবছর ৩২টি দল অংশ নিচ্ছে। পুরস্কার মূল্য, টিফিন খরচ, ‘ম্যান অব দ্য ম্যাচ’-এর পরিমান, বর্ণাঢ্য উদ্বোধন,  জাতীয় ও আন্তর্জাতিক মানের রেফারি সব মিলিয়ে সকার কাপ ঘিরে শহরের ক্রীড়া প্রেমী মানুষের উন্মাদনা তুঙ্গে। আগামী ২৪ নভেম্বর রবিবার সন্ধ্যায় নৈশালোকে বিবেকানন্দ স্টেডিয়ামে সূচনা হবে ষষ্ঠ বর্ষ সকার কাপের। প্যাক কোম্পানির মাঠ, কর্মমন্দির ও বিবেকানন্দ স্টেডিয়াম সহ এই তিনটি মাঠে ফাইনাল সহ মোট ৩১ টি ম্যাচ অনুষ্ঠিত হবে।  সকার কাপ পরিচালন কমিটির সম্পাদক সুজিত সাহা বলেন, সকার কাপের জনপ্রিয়তা দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে। ষষ্ঠ বর্ষ সকার কাপের ফাইনালের চ্যাম্পিয়ন পুরস্কার মূল্য ৬০ হাজার টাকা থেকে বাড়িয়ে ৭৫ হাজার টাকা করা হয়েছে,  রানার্স পুরস্কার মূল্য ৪০ হাজার টাকা থেকে বাড়িয়ে ৫৫ হাজার টাকা করা হয়েছে। কোয়াটার ফাইনাল থেকেই ‘ম্যান অব দ্য ম্যাচ’ দেওয়া হবে। সকার কাপের প্রস্তুতি সভার দিনই ২২টি ক্লাব তাদের সম্মতি জানিয়ে দিয়েছে। নতুন দল হিসেবে আরও একটি ক্লাব খেলতে ইচ্ছা প্রকাশ করেছে। সুজিত বাবু জানান, ক্লাবগুলির সম্মতি জানানোর শেষ দিন ৫ নভেম্বর বুধবার। খেলার সুচি তৈরি হবে ৭ নভেম্বর শুক্রবার। প্রস্তুতি সভায় বিভিন্ন ক্লাবের প্রতিনিধিদের দাবি মেনে ষষ্ঠ বর্ষ সকার কাপে স্থানীয় খেলোয়াড় একজনই রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হযেছে।  নবদ্বীপ পুরসভার চেয়ারম্যান তথা সকার কাপ কমিটির অন্যতম সভাপতি বিমানকৃষ্ণ সাহা বলেন, ভালো ফুটবলার তৈরি করতে পুরসভা মিউনিসিপ্যাল স্পোর্টস অ্যাকাডেমি গঠন করেছে। এখানে নিয়মিত স্থানীয় ছেলেমেয়েদের ফুটবল প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়। ফুটবলার তৈরি ও খেলাকে উৎসাহ দিতেই সকার কাপ প্রতিযোগিতা শুরু করা হয়। সকার কাপ কমিটির মুখ্য উপদেষ্টা তথা নবদ্বীপের বিধায়ক পুণ্ডরীকাক্ষ সাহা বলেন, সকার কাপ চালু হওয়ায় নবদ্বীপের ক্লাবগুলি আরও বেশি উৎসাহ পাচ্ছে।

Loading...